ইকুয়েডর দূতাবাস থেকে গ্রেফতার জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ


অথর
প্রযুক্তির খবর নিউজ ডেক্স   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :১১ এপ্রিল ২০১৯, ১২:৪২ অপরাহ্ণ
  • 37
    Shares
ইকুয়েডর দূতাবাস থেকে গ্রেফতার জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ

উইকিলিক্স-এর প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জকে লন্ডনের ইকুয়েডর দূতাবাস থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বিবিসি’র এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। তার শরণার্থী মর্যাদা তুলে নেয়া হলে লন্ডনে ইকুয়েডর দূতাবাস থেকে বৃহস্পতিবার তাকে গ্রেফতার করা হয়। ২০১২ সাল থেকে দূতাবাসটিতে আশ্রয় নিয়ে আছেন অ্যাসাঞ্জ। এর আগে তাকে লন্ডনের ইকুয়েডর দূতাবাস থেকে তাড়িয়ে দেয়ার আশঙ্কায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ।

তিনি লন্ডনের একুয়েডর দূতাবাসে সাত বছর ধরে আশ্রয়ে ছিলেন। ইকুয়েডরের রাষ্ট্রপতি লেনিন মোরেনো বলেছেন, আন্তর্জাতিক কনভেনশন বার বার লঙ্ঘন করার জন্য অ্যাসাঞ্জের আশ্রয় প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে। তার বিরুদ্ধে ২০১০ সালে সুইডেনে দু’জন মহিলাকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে মামলা ছিল, কিন্তু তা পরবর্তীতে প্রত্যাহার করে নেয়া নয়।

অ্যাসাঞ্জ তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন।

লন্ডন পুলিশ বলছে, অ্যাসাঞ্জকে আদালতে আত্মসমর্পণ করতে ব্যর্থ হওয়ার কারণে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, গ্রেফতারি পরোয়ানা বাস্তবায়ন করা তাদের দায়িত্ব। ইকুয়েডর সরকার তার রাজনৈতিক আশ্রয় তুলে নিলে তাকে গ্রেফতারে পুলিশ ডেকে এনেছে দূতাবাস কর্তৃপক্ষ।ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ বলেন, প্রায় সাত বছর ইকুয়েডর দূতাবাসে থাকার পর, আমি নিশ্চিত করে বলতে পারি, তিনি এখন পুলিশ হেফাজতে রয়েছেন। তিনি বলেন, অ্যাসাঞ্জ ব্রিটেনে বিচারের মুখোমুখি হবেন। সহযোগিতার জন্য ইকুয়েডর সরকারকে আমি ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আসলে কেউ আইনের উর্ধ্বে নয়। লাখ লাখ মার্কিন কূটনৈতিক গোপন নথি ফাঁস করে আলোচনায় এসেছিলেন অস্ট্রেলীয় নাগরিক অ্যাসাঞ্জ।

No Comment.