ইচ্ছে–নদী


রত্নপ্রভা গাংগুলী
অথর
নতুনত্বের প্রচেষ্টা ডেক্স   সাহিত্য আসর
প্রকাশিত :১ জুন ২০১৯, ১১:৩৯ অপরাহ্ণ
ইচ্ছে–নদী

ছিলেম তো বেশ বিজন পথের বাঁকে,
শাল পিয়াল তমাল তরু সারি সারি ঝাঁকে।
তুমি তোমার মন পিয়াসে আপণ ধারায়,
ছুটে ঢেউখেলানো স্রোতে স্রোতে
গগন পারায়।

কখনো নীল ঢেউ ছুঁয়ে নীলিমায়,
আলাপনে মুক্তা ছড়িয়ে চাঁদিমায়।
কখনো ওপার থেকে জোছনা তোমার বুকে,
আলেয়ার জলছবি দিয়ে যায় তুলিতে এঁকে।

আকাশ তোমায় নিদারুণ রেখেছে অনুরাগের ছায়া,
তাই তো মেঘের সাথে গেঁথেছো মায়া।
বোঝনা শুধু মোদের করুণ কাকুতি
কত ডেকে বলেছি করেছি মিনতি।

দেখো আমার সাথে আর ঝাঁক বাঁধা নেই,
দাঁড়িয়ে পিয়াল আমি এঁকা ঠাঁই ।
মোদের মায়ের কোঁথ নিয়েছো ভাসিয়ে,
দাঁড়াবার শক্তি গেছে হারিয়ে।

মুর্ছিত তরু শিকড় দুমড়ানো কোলে
ভেসে ভেসে তোমার নদীর জলে ।
আকাশের দু:খের ভার নিয়ে রাখো ধরে,
তার অশ্রু যখন অঝোরে ঝরে ।

বাদল ঢলে বয়ে যাওয়া কান্না,
স্রোতস্বিনী তুমি ধরে নিয়ে বুকে বয়ে যাও বন্যা।
মৃত্তিকার মার চরণ ধুয়ে মুছে,
তরু মোরা নীর আঁখি স্রোতে।

ছুটন্ত দিক নেই সীমানা,
একুল-ওকুল দুকুল ছুটে বেড়ানা।
ওগো তোমার সাথে রেখো আমায় জুটি ,
শুনছো তুমি নিয়ো নাগো স্রোতা ইচ্ছে নদী।

No Comment.