ধ্রুব, সপ্তর্ষি এবং লঘু সপ্তর্ষির কিছু অজানা তথ্য


অথর
অন্য ভূবণ নিউজ ডেক্স   ফিচার
প্রকাশিত :১৪ মে ২০১৯, ১২:৩৩ অপরাহ্ণ
ধ্রুব, সপ্তর্ষি এবং লঘু সপ্তর্ষির কিছু অজানা তথ্য

সপ্তর্ষি সাত তারার একটি নক্ষত্র। দেখতে প্রায় একটি জিজ্ঞাসার চিহ্নের বা খড়েগর মতো৷ সপ্তর্ষিকে চৈত্র – বৈশাখ মাসের সন্ধ্যায় উত্তর আকাশে খুব উপরে দেখতে পাওয়া যায়। জ্যৈষ্ঠ – আষাঢ় – শ্রাবণে সে ক্রমেই পশ্চিমে সরে আসে, শেষে ভাদ্র থেকে অগ্রহায়ণ মাস পর্যন্ত উত্তর -পূর্ব আকাশে দেখাই যায় না৷ পৌষ মাসে সপ্তর্ষি উত্তর – পূর্ব আকাশে দেখা যায়, তারপর যত দিন যায় ততই পশ্চিমে সরে আসে৷

পুরাণের মতে, সাতজন ঋষি আকাশে সপ্তর্ষি নক্ষত্র হয়ে রয়েছেন। তাঁদের নামেই সপ্তর্ষির সাতটি তারার নাম – বশিষ্ঠ, মরীচি, অত্রি, অঙ্গিরা, পুলহ, পুলস্ত্য আর ক্রতু। ইউরোপীয় নাম Ursa Major _ ইংরেজি মানে হচ্ছে Great Bear বা ‘বড়

ভালুক’। ভালুকের চাইতে একটি প্রশ্নচিহ্নের চেহারার সঙ্গেই এর বেশি মিল। এর সপ্তর্ষিকে নিয়েই বৃহৎ সপ্তর্ষিমন্ডল। এরই মতো, কিন্তু ছোট আর একটি নক্ষত্রমন্ডল আছে। এর নাম ছোট ভালুক। এর আর এক নাম লিটল ডিপার। একেও দেখতে প্রশ্নচিহ্নের মতো, তবে আকারে ছোট। এর মাথাটা চৌকো, কিন্তু লেজটি সামনের দিকে বাঁকানো।

আমাদের দেশে এর নাম হচ্ছে লঘু সপ্তর্ষি, অপর নাম শিশুমার ; মানে শুশুক৷ লঘু সপ্তর্ষির শেষ তারাটাই ধ্রুবতারা। লঘু সপ্তর্ষির দিকে তাকালে ধ্রুবতারাকে খুঁজে বের করতে কোন অসুবিধা হওয়ার কথা না। সপ্তর্ষিকে চিনলে ধ্রুবতারাকে সহজেই খুঁজে বের করা যায়। সপ্তর্ষির মাথার তারকা দুটিকে মনে মনে একটা লাইন দিয়ে যোগ করে সেই লাইনটাকে সামনের

দিকে বাড়িয়ে গেলেই সেটা ধ্রুবতারার পাশ দিয়ে যাবে৷ ধ্রুবতারা চেনার আরও একটা উপায় আছে৷ সপ্তর্ষি যে অবস্থায় থাকুক না কেন, এ লাইনটা ধ্রুবতারার পাশ দিয়ে যাবেই। পুরাণের মতে, অরুন্ধতী বলে একটি অস্পষ্ট তারকা আছে৷ অরুন্ধতী ছিলেন বশিষ্ঠ ঋষির স্ত্রী, আকাশেও তিনি বশিষ্ঠের পাশেই আছেন। বশিষ্ঠ তারাটি সপ্তর্ষি নক্ষত্রের নীচের শেষ তারাটির উপরে রয়েছে।

No Comment.