নিজের ঘর থেকেই আমরা অভিযান শুরু করেছি : ওবায়দুল কাদের


অথর
ডোনেট বাংলাদেশ ডেক্স   রাজনীতি
প্রকাশিত :২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১:০৬ অপরাহ্ণ
নিজের ঘর থেকেই আমরা অভিযান শুরু করেছি : ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নিজের ঘর থেকেই আমরা অভিযান শুরু করেছি। বেশ কিছু নেতা নজরদারিতে রয়েছেন। অপকর্ম করলে কেউই ছাড় পাবে না। তিনি বলেন, ‘এখন তো সবাই আওয়ামী লীগের নেতা। আগে কে কোন দল ছিল, সে কথা বলে তো লাভ নেই। আমি আমার দলে নিলাম কেন? এখন সে আমার দলের পরিচয় ব্যবহার করছে। কাজেই আমরা নিজ ঘর থেকেই অভিযান শুরু করেছি।’ ওবায়দুল কাদের মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে বিশ্বব্যাংক ও জাতিসংঘের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন। নেতাদের বিদেশ

ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা নিয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বাইরে যাওয়ার ব্যাপারে কত জনের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা হয়েছে সেই বিষয়ে আমার জানা নেই। তবে, বেশ কিছু নেতা নজরদারিতে রয়েছেন। নজরদারিতে যদি বিদেশ ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা থাকে, তাহলে তা মানতে হবে। তবে কতজনের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে সেই সংখ্যাটা আমি জানি না।’ ‘ক্যাসিনো নিয়ে সরকারের পরিকল্পনা কী?’- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ক্যাসিনো বিষয়ে এখন হাঙ্গামা চলছে। ক্যাসিনো নীতিমালার মধ্যে এনে চালু করা হবে, নাকি একেবারেই বাদ দেয়া হবে, এ বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। ‘বিশ্ব ব্যাংক ও জাতিসংঘের প্রতিনিধিদল আওয়ামী লীগের সম্মেলনের বিষয়ে কী বলেছে?’- এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন,

তারা আওয়ামী লীগের সম্মেলন নিয়ে জানতে চেয়েছে, কিভাবে আমরা প্ল্যান করছি। কাউন্সিলিংয়ে নেতাদের কোনো প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা আছে কিনা, কেন্দ্রীয়ভাবে নারীদের কতটুকু প্রধান্য দেওয়া হবে, নারীদের ক্ষমতায়ন আরও বাড়বে কিনা, এগুলো জানতে চেয়েছেন। তিনি বলেন, তারা আমাদের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে সহযোগিতা করবে। তারা দলীয় কাউন্সিলে নারী প্রতিনিধিত্ব আরো বাড়ানো হবে কিনা সে বিষয়ে জানতে চেয়েছে। এ বিষয়ে আমাদের পরিকল্পনা আছে বলে জানিয়েছি। বৈঠকের বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিশ্বব্যাংক বাংলাদেশের সড়ক নিরাপত্তা নিয়ে কাজ করতে চায়। বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে বৈরী সম্পর্ক রাখতে চাই না। তারা সড়ক নিরাপত্তা নিয়ে কাজ করতে প্রস্তাব দিয়েছে। বাংলাদেশ বিষয়টিতে ইতিবাচক মনোভাব দেখিয়েছে।