“নেতৃত্বের অদৃশ্য অভিলাষে ক্ষতিগ্রস্থ শিক্ষক সমাজ”


অথর
শিক্ষক নিউজ ডেক্স   খোলা মতামত
প্রকাশিত :৬ জুন ২০১৯, ৬:১১ অপরাহ্ণ
“নেতৃত্বের অদৃশ্য অভিলাষে ক্ষতিগ্রস্থ শিক্ষক সমাজ”

প্রতিনিত্বশীল বহুধা বিভক্তির কুটকৌশলের বেড়াজালে শিক্ষক সংগঠন গুলো যখন শৃঙ্খলিত,অধিকার বন্চিত শিক্ষক সমাজ যখন শিক্ষক নেতাদের নেতৃত্বের কুটচালে অবরুদ্ধ, ঠিক তখনই শিক্ষক সংগঠন গুলোকে ঐক্যবদ্ধ করে অভিন্ন দাবী বাস্তবায়নের মানসে শিক্ষক সংগঠন গুলোকে একই মোহনায় মিলিত করার প্রয়াসে নজরুল ইসলাম রনি স্যার অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন, ঠিক তখনই অদৃশ্য অভিলাশে শিক্ষক সমাজের মধ্যে বিভাজন সৃষ্টির প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে। দাবী যদি অভিন্ন হয়, তাহলে ঐক্যবদ্ধ হওয়া বাঁধা কোথায়? আমরা কর্মী, সমর্থকরা স্ব স্ব সংগঠনের নেতৃবৃন্দকে কি এই প্রশ্নটা করতে পারি না! দাম্ভিক নেতৃত্ব–কর্মী, সমর্থকদের অস্তিত্ব শুধু হুমকির মুখেই ফেলে দেয় না ;কর্মী, সমর্থকরা হয় বন্চিত আর হতাশাগ্রস্হ।বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার স্বপ্ন মানুষকে জাগিয়ে তুলতে কর্মীরাই ছড়িয়ে দিয়েছিলেন সর্বস্তরে। রাজনৈতিক ক্রান্তিলগ্নে বঙ্গবন্ধু ছুটে চলে যেতেন মজলুম জননেতা মাওলানা আব্দুল হামিদ খাঁন ভাসানীর কাছে। রাজনৈতিক দূরদৃষ্টির কারনেই বঙ্গবন্ধু বাঙালী জাতির পিতা।দুই ভূবনের বাসিন্দা নব নির্বাচিত নরেন্দমোদি উদারতা নিয়ে আশীর্বাদ নিতে যান প্রনব মুখার্জির বাড়িতে। প্রনব মুখার্জি মিষ্টি মুখ করিয়ে আশীর্বাদ করে দিলেন নরেন্দ্রমোদিকে। আমরা বিচিত্র সংস্কৃতির যুগে বাস করছি। সব কিছুতেই এখন ফরমালিন আর ভেজাল। ভেজাল নেতিবাচক নেতৃত্বের কারনে শিক্ষক সমাজ দিন দিন হতাশার মহাসাগড়ে নিমজ্জিত হচ্ছেন। দূর করতে হবে অহমিকা, নেতৃত্বের নিষ্ঠুর প্রতিহিংসা। সকল শিক্ষক সংগঠনের নেতৃবৃন্দের প্রতি উদাত্ত আহবান অধিকার বন্চিত শিক্ষক সমাজের বৃহৎ স্বার্থে অভিন্ন দাবীতে ঐক্যবদ্ধ হয়ে শিক্ষক সমাজের প্রানের দাবী “শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করন” আন্দোলনে শরীক হয়ে শিক্ষক সমাজের কাংখিত স্বপ্ন বাস্তবায়ন করুন। বাংলাদেশের সকল শিক্ষক সমাজ আপনাদের সারা জীবন শ্রদ্ধার সাথে স্বরণ করবেন।

মোঃ নজরুল ইসলাম
গণ সংযোগ সম্পাদক,
কেন্দ্রীয় কমিটি,
বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি।

No Comment.