ব্যর্থ ভারতের চন্দ্রযান ২


অথর
প্রযুক্তির খবর নিউজ ডেক্স   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১১:০৬ পূর্বাহ্ণ | পঠিত : 88 বার
ব্যর্থ ভারতের চন্দ্রযান ২

চোখ মেলে তাকিয়েছিল প্রায় গোটা ভারত। মধ্যরাতে চাঁদের মাটিতে ভারতের বিক্রম দেখতে হাজির ছিলেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কিন্তু চন্দ্রযান-২ এর অবতরণের কয়েক সেকেন্ড আগেই এর ল্যান্ডারের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে বলে জানিয়েছেন ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা, ইসরোর বিজ্ঞানীরা। প্রথম দেশ হিসেবে চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে অবতরণ করে প্রথম দেশের স্বীকৃতি পাওয়ার আশায় ছিল ভারত, তবে রাত ১.৫৫ টার দিকে জানা যায় মিশন সফল হচ্ছে না।

সবকিছু ঠিক থাকলে শুক্রবার রাত ১টা ৫৩ মিনিটে চাঁদের মাটিতে পা রাখার কথা ছিলো ভারতের চন্দ্রযান-২। কিন্তু ব্যর্থ হয়েছে ভারতের চন্দ্র অভিযান প্রকল্প। চাঁদের মাত্র ২.১ কিলোমিটার আগে থেকে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে

ল্যান্ডার বিক্রমের। চন্দ্রযান ২-এর মতো চ্যালেঞ্জিং প্রকল্পে আশানুরূপ ফল না মেলায় হতাশ ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা, ইসরোর বিজ্ঞানীরা। তবে তাদের হতাশ না হওয়ার বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। শোনালেন নতুন দিনে গান, উৎসাহিত করলেন আগামী প্রকল্পের জন্য। শুক্রবার রাতে বেঙ্গালুরুতে ইসরোর কন্ট্রোল রুমে বিজ্ঞানীদের সঙ্গে বসে চন্দ্রযান-২’র গতিবিধি লক্ষ্য করছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও। মিশন ব্যর্থ হওয়ার পর তিনি শনিবার সকালে চন্দ্রযান ২ নিয়ে ইসরো থেকে জাতীর উদ্দেশে ভাষণ দেন। ভাষণে গোটা দেশকে আশার বাণী শুনিয়ে গেছেন মোদি। আগামীতে ফের চন্দ্র অভিযান শুরু করারও ইঙ্গিত দিয়েছেন।

মোদি এই অভিযানের সঙ্গে যুক্ত বিজ্ঞানীদের গোটা টিমকে ধন্যবাদ দিয়ে বলেন, ‘আমি গর্বের সঙ্গে বলতে পারি,

অভিযানের জন্য সার্বিক চেষ্টা করা হয়েছে। গোটা টিম নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করে অনেক দূর এগিয়েছে। আজ আমাদের এই ব্যর্থতা আগামীদিনে আরও শক্ত ও আরও ভালো হতে সাহায্য করবে। একটা নতুন ভোর আসবেই। ব্যর্থতা বলে কিছু নেই, শুধুই চেষ্টা আর পরীক্ষা।’ তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘আমরা সাফল্যের নতুন শিখরে পৌঁছবো। আমি আপনাদের বলতে চাই, সারা দেশ আপনাদের সঙ্গে আছে। আপনারা দেশের উন্নতি বড় অবদান রেখেছেন।’

তিনি চন্দ্র বিজয়ে নতুন অভিযান শুরুর ইঙ্গিত দিয়ে বলেন, ‘প্রতিটা ভারতবাসী আমাদের বিজ্ঞানীদের নিয়ে গর্বিত এবং তারা আরও আত্মবিশ্বাসীও হলেন। চাঁদের পৌঁছনোর জন্য আমাদের ইচ্ছাশক্তি আরও প্রবল হয়েছে। সংকল্প আরও দৃঢ় হয়েছে।সবাই আমাদের বিজ্ঞানীদের প্রতি সমব্যাথী।

আজ চাঁদে পৌঁছনোর জেদ আমাদের আরও দৃঢ় হলো। আজ হয়তো চাঁদে আমাদের অভিযান ব্যর্থ হয়েছে। কিন্তু আমরা আশা হারাব না।’ জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে বিজ্ঞানীদের পাশাপাশি তাদের পরিবারকেও স্যালুট জানান মোদি।

ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো-র প্রধান ক শিবান বলেন, বিক্রম ল্যান্ডার ছিল পরিকল্পিত। ২ দশমিক ১ কিলোমিটার পর্যন্ত এটি স্বাভাবিক লাগছিল। পরে পৃষ্ঠের সঙ্গে ল্যান্ডারের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। যাবতীয় তথ্য বিশ্লেষণ করা হচ্ছে। ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, পরিকল্পনা মাফিক যদি সবকিছু এগিয়ে যেতো, তাহলে সকাল ৫.৩০ থেকে ৬.৩০ এর মধ্যে বেরিয়ে পড়তো এই চন্দ্রযান। ১৪ দিনের আয়ুষ্কালে চাঁদের সম্পদের খোঁজ করা, পানির সন্ধান করা এবং উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন ছবি সংগ্রহের

কাজ করতো এটি।