ব্যাংকিং সেক্টরে কোন প্রকার অনিয়ম ও অবস্থাপনা সহ্য করবো না : অর্থমন্ত্রী এএইচএম মুস্তফা কামাল


অথর
অর্থনৈতিক ডেক্স   ব্যবসা বানিজ্য
প্রকাশিত :৩ এপ্রিল ২০১৯, ৪:৪৯ পূর্বাহ্ণ
  • 121
    Shares
ব্যাংকিং সেক্টরে কোন প্রকার অনিয়ম ও অবস্থাপনা সহ্য করবো না : অর্থমন্ত্রী এএইচএম মুস্তফা কামাল

অর্থমন্ত্রী এএইচএম মুস্তফা কামাল বলেছেন, সরকার অর্থনীতিতে কোন প্রকার অবব্যস্থাপনা বরদাস্ত করবে না। তিনি বলেন, আমি চাই সবকিছু যথাযথ এবং সঠিকভাবে চলবে। তিনি মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে চতুর্থ প্রজন্মের ব্যাংক পদ্মা ব্যাংক লিমিটেডের প্রথম বাষির্ক ব্যবসা সম্মেলনে এ কথা বলেন।
অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামাল ব্যাংকিং খাত নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর অবস্থানের উল্লেখ করে বলেন, আমি তাঁকেই অনুসরণ করবো। আমি এই সেক্টরে কোন প্রকার অনিয়ম ও অবস্থাপনা সহ্য করবো না। তিনি বৈশ্বিক অর্থনীতিতে বাংলাদেশ বিগত দশ বছরে ৫৮তম স্থান থেকে ৪২তম স্থানে আসার উল্লেখ করে বলেন, এখন আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে প্রতি বছরে এক এক দেশকে টপকিয়ে ২০৪১ সালের মধ্যে শীর্ষ দশটি দেশের তালিকায় বাংলাদেশের

নাম অন্তর্ভুক্ত করা। তিনি বলেন, একটি উন্নত দেশ হিসাবে বাংলাদেশকে গড়ে তুলতে আমাদের জন্য সময়সীমা হচ্ছে ২০৪১ সাল। অর্থনৈতিকভাবে দেশে প্রত্যেকেই নিরাপদ উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমার ওপর আস্থা থাকলে কেউ ক্ষতিগ্রস্ত হবে না। তিনি বলেন, আমি সবসময় ভাল লোক, ভাল ব্যবসায়ী এবং ভাল ব্যাংকারদের সঙ্গে আছি।
অর্থমন্ত্রী পদ্মা ব্যাংকের সফলতা কামনা করে বলেন, আগামী দিনগুলোতে এই ব্যাংক সফল হবে। দেশের প্রতিটি ব্যাংক এবং আথির্ক প্রতিষ্ঠান সফল হবে বলেও তার বিশ্বাস।
অর্থমন্ত্রী বলেন, সময় এখন বাংলাদেশের এগিয়ে যাওয়ার এবং এই লক্ষ্যে আগামী ২৫ থেকে ৩০টা বছর বাংলাদেশের জন্য। তিনি বলেন, আমরা অবশ্যই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে

সক্ষম হব।
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূইয়া এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব মোহাম্মদ আসাদুল ইসলাম সম্মানিত অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন। বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শফিকুর রহমান পাটোয়ারী এবং পদ্মা ব্যাংকের চেয়ারম্যান চৌধুরী নাফিজ শরাফাত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।
সারা দেশে ব্যাংকটি ৫৭টি শাখার মাধ্যমে আধুনিক ব্যাংকিং সেবা দিয়ে যাচ্ছে।

No Comment.